আত্মহত্যার আগে কোহিলী ইশারায় যা বলেছিলেন

২১ এপ্রিল,২০১৭

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
নওগাঁ: নওগাঁর মান্দায় কোহিলী খাতুন (২১) নামে এক বাকপ্রতিবন্ধী তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার ভারশোঁ ইউনিয়নের মহানগর গ্রামে সে আত্মহত্যা করে। নিহত কোহিলী একই গ্রামের আবদুল মান্নানের মেয়ে। স্থানীয় প্রভাবশালী মহল ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

নিহত কোহিলীর আকার-ইঙ্গিতে স্থানীয়রা বলেন, বুধবার বিকেলে বাড়িতে কোহিলী একা ছিল। এসময় তিন যুবক বাড়িতে ঢুকে কোহিলীর মুখ গামছা দিয়ে বেধে জোর পূর্বক তাকে ধর্ষণ করে। এতে সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তবে জ্ঞান ফেরার পর বাড়ির বাহিরে এসে কান্নাকাটি করে। প্রতিবেশীরা বিষয়টি জানতে চাইলে সে আকার ইঙ্গিতে তিন যুবক তাকে ধর্ষণ করেছে বলে জানায়।

কোহিলীর চাচা মতিউর রহমান জানান, তার গলায় নখের একাধিক আঁচড়ের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ক্ষতস্থান দিয়ে রক্ত ঝরছিল।

নিহতের বাবা আবদুল মান্নান জানান, বিকেলে ছোট মেয়ে তিথিকে স্কুলে নেয়ার জন্য যান। সেখান থেকে দেলুয়াবাড়ি বাজারে কেনাকাটা করে বিকেল ৫টার দিকে বাড়ি ফেরার পর বিষয়টি জানতে পারেন।

এদিকে মান্দা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিছুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। তবে মরদেহ উদ্ধার করে বৃহস্পতিবার বিকেলে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

ছ’মাসের অন্তঃসত্ত্বা হাসিনা সাত দিন ধরে হাঁটছেন

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: একটি বাঁশের লাঠি ধরে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটছিলেন হাসিনা বেগম। তিনি ছ’মাসের অন্তঃসত্বা। ট . . . বিস্তারিত

আবহাওয়া আর অনাহার অসুস্থ করে দিচ্ছে পালংখালির রোহিঙ্গাদের

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: কক্সবাজার সীমান্তে নতুন করে আসা হাজার হাজার রোহিঙ্গা, দুদিনের বেশী সময় ধরে খোলা আকাশের নিচে রোদ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com