ব্রেকিং সংবাদ: |
  • টরেন্টোর হামলাকারী সম্পর্কে সর্বশেষ যা জানা যাচ্ছে
  • তাবিথ আউয়াল ও আব্দুল হাই বাচ্চুকে দুদকে তলব
  • হঠাৎ কেঁপে উঠলো সিলেট, ৫ দশমিক ২ মাত্রার ভূমিকম্প
  • টরোন্টোয় গাড়িচাপায় প্রাণ গেল ১০ পথচারীর, ট্রুডোর সান্ত্বনা
  • বিজেপির শীর্ষ নেতাদের বক্তব্যে ঢাকার রাজনীতিতে তোলপাড়
  • খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে গেছেন স্বজনরা
  • কাবুলে ভোটার নিবন্ধনকেন্দ্রে হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬৩
  • ২৫ বছরের যুদ্ধে সোয়া কোটি মুসলিম নিহত, যা একটি বিশ্বযুদ্ধের সমান ক্ষয়ক্ষতি
  • খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সপ্তাহব্যাপী বিএনপির নতুন কর্মসূচি ঘোষণা
  • ত্রিভুবন বিমানবন্দরের গাফিলতিই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী: ইউএস-বাংলা
  • যে শর্তে গাজীপুর সিটি নির্বাচনে বিএনপিকে ছাড় দিল জামায়াত

দেশে চোরের পরিবর্তন হলেও নীতির পরিবর্তন হয় না: চরমোনাই পীর

১৬ ফেব্রুয়ারি,২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
নারায়ণগঞ্জ: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমির ও চরমোনাই পীর আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম বলেছেন, দেশে চোরের পরিবর্তন হলেও নীতির পরিবর্তন হয় না। দেশে ৭০ ভাগ টাকা চুরি হয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদের উদ্ধৃতি দিয়ে চরমোনাই পীর বলেন, খোদ রাষ্ট্রপতি বলেছেন, দেশে যে পরিমাণ টাকা চুরি হয় তা দ্বারা দু’টি পদ্মা সেতু নির্মাণ করা যেতো। তাই চোরদের দ্বারা দেশ কখনো এক নম্বর হতে পারে না।

তিনি বলেন, সরকার তার বিদেশী প্রভুদের খুশি করার জন্য হিন্দু রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য গ্রীক মূর্তির ভাস্কর স্থাপন করেছেন। সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে গ্রীক মূর্তি অপসারণ না করা হলে সরকার পতনের আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীন করা হয়েছিলো জনগণের ন্যায্য অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য। মানুষ তার মৌলিক অধিকার ফিরে পাবে। পাবে ধর্মীয় ক্ষেত্রে স্বাধীনতা। কিন্তু স্বাধীনতার ছেচল্লিশ বছরেও মানুষ তাদের স্বাধীনতার স্বাধ গ্রহণ করতে পারেনি। নেই মানুষের বাক স্বাধীনতা। নেই বিচার বিভাগের স্বাধীনতা। নেই আইনের শাসন।

ফয়জুল করীম বলনে, এই সরকার আমলে চারদিকে শুধু ধর্ষিতা বোনদের রোনাজারী, মজলুম জনতার আর্তনাদ। সন্তান হারা মায়ের চিৎকার, মা হার সন্তানের বুকফাটা কান্না শোনা যায়। এ অবস্থা শুধু ইসলামী মূল্যবোধ না থাকার কারণে। তাই সরকারকে বলবো, বাংলাদেশকে একটি সফল রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে হলে অবশ্যই ইসলামী শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করতে হবে।

জেলা সভাপতি মুহাম্মাদ ওমর ফারুকের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ যুগ্ম-মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির মুহতারাম সভাপতি জি এম রুহুল আমীন।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

বাংলাবান্ধা দিয়ে নেপালের উদ্দেশ্যে ৪৩ সদস্যের প্রতিনিধি দলের ভারতে প্রবেশ

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনপঞ্চগড়: বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালের মধ্যে বাস চলাচল প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে মঙ্গলবার বাংলাদেশ থেকে দু . . . বিস্তারিত

রানা প্লাজা: পাঁচ বছর পরও কাজের সন্ধানে আহত শ্রমিকরা

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: সাভারের ধসে যাওয়া রানা প্লাজা যেখানে ছিলো সেটি এখন কচুরিপানায় ভর্তি একটি জলাশয়ের মতো। ম . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com