লিটন হত্যাকাণ্ডে আইন-শৃংখলার অবনতি বলা যাবে না: আইজিপি

১০ জানুয়ারি,২০১৭

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
রংপুর: বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক একেএম শহিদুল হক দাবি করেছেন, গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যাকাণ্ড একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

মঙ্গলবার দুপুরে রংপুর পুলিশ হলের সামনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি এ কথা বলেন। এসময় রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুকসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, লিটন হত্যার ঘটনাকে আইন-শৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি বলা যাবে না। দেশ এখন অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি অনেক ভালো আছে।

লিটন হত্যা মামলায় উল্লেখযোগ্য কোনো অগ্রগতি হয়নি জানিয়ে একেএম শহিদুল হক বলেন, ‘এ বিষয়ে পুলিশের সব সংস্থা কাজ করছে। যদি কোনো অগ্রগতি হয় আপনাদের জানানো হবে। এ পর্যায়ে এর বেশি কোনো তথ্য দিতে পারছি না।’

পুলিশ প্রধান বলেন, ‘এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা জঙ্গি, জামায়াত নাকি দলীয় কেউ সেসব বিষয় সামনে রেখে তদন্ত কার্যক্রম চালাচ্ছে আইন-শৃংখলা বাহিনী। আমরা সনাক্ত করতে নিরপেক্ষ ও পেশাদারিত্ব নিয়ে কাজ করছি। আমাদের কাছে যেসসব তথ্য তা আমলে নিয়েই কাজ করছি।’

পরে আইজিপি রংপুর পুলিশ হলে ক্রাইম কনফারেন্সে অংশ নেন।

উল্লেখ্য, গত (৩১ ডিসেম্বর) শনিবার সন্ধ্যায় নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে আহত হয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এমপি লিটনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় তার ছোট বোন ফাহমিদা বুলবুল কাকলী বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনকে আসামী করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় হত্যাকারীদের গ্রেফতারে প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানা গেছে।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনযশোর: যশোরের অভয়নগর উপজেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শহিদুল ইসলাম (৩৪) নামের এক ব্যক্তি নিহত হ . . . বিস্তারিত

নীলফামারীতে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরে গেল ১২ প্রাণ

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএননীলফামারী: নীলফামারীর সৈয়দপুরে যাত্রীবাহী নৈশকোচের ধাক্কায় পিকনিকের যাত্রীভর্তি একটি পিকআপ ভ্যান . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com