এমপি লিটন হত্যায় আ. লীগ নেতা গ্রেপ্তার

০৮ জানুয়ারি,২০১৭

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
গাইবান্ধা: গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম হত্যার ঘটনায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আহসান হাবিব ওরফে মাসুদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রবিবার সকালে সুন্দরগঞ্জ বাজার এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিয়ার রহমান এ তথ্য জানান।

তবে মাসুদের পরিবারের অভিযোগ, গত শুক্রবার রাতে জিজ্ঞাসাবাদের কথা বলে তাকে তুলে নিয়ে যায় পুলিশ।

মাসুদের পরিবারের এই অভিযোগ পুলিশ অস্বীকার করে ওসি আতিয়ার রহমান জানান, শুক্রবার নয়, রবিবার সকালে এমপি লিটন হত্যা মামলায় মাসুদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ওসি আতিয়ার রহমান আরো জানান, গ্রেপ্তার হওয়া মাসুদ আগে জাসদের রাজনীতি করতেন। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে তিনি স্বেচ্ছাসেবক লীগে যোগদান করে।
 
ওসি জানান, তবে নিহত সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন মাসুদের আওয়ামী লীগে যোগদান মেনে নেননি। এই কারণে এমপি মহোদয়ের সঙ্গে তার বিরোধ চলে আসছিল।
 
তিনি বলেন, এই বিরোধ অনেক ক্ষেত্রে প্রকাশ্যে দেখা দেয়। তাই এমপি হত্যার ঘটনায় কিলার মাসুদ সন্দেহের তালিকায় ছিল। এজন্য তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গত ৩১ ডিসেম্বর গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শাহাবাজ গ্রামের বাড়িতে ঢুকে এমপি লিটনকে গুলি চালিয়ে হত্যাই করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় লিটনের বোন অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন। হত্যায় জড়িত সন্দেহে এপর্যন্ত ৫৩ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

হবিগঞ্জের নারায়ণপুর পাঁচ জেএমবি সদস্য আটক

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনহাবিগঞ্জ: হবিগঞ্জের নারায়ণপুর দীঘলবাগ এলাকা থেকে পাঁচ জেএমবির সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে র‌্য . . . বিস্তারিত

সরকার ধর্মীয় মূল্যবোধ ও নৈতিকতা বিকাশে কাজ করছে: প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গা

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনরংপুর: এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, বর্তমান সরকার ধর্মীয় মূল্যবো . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com