দেশের যেকোনো সঙ্কটে সেনাবাহিনী ভূমিকা রাখতে প্রস্তুত: সেনাপ্রধান

২২ নভেম্বর,২০১৮

দেশের যেকোনো সঙ্কটে সেনাবাহিনী ভূমিকা রাখতে প্রস্তুত: সেনাপ্রধান

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেছেন, দেশের যেকোনো প্রয়োজন-সঙ্কটে ভূমিকা রাখতে দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী প্রস্তুত।

বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা সেনানিবাসে খেতাবপ্রাপ্ত সেনাসদস্য এবং শান্তিকালীন পদকপ্রাপ্তদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

সেনাপ্রধান বলেন, ‘দেশের যেকোনো প্রয়োজনে সাড়া দিয়ে জনগণের সঙ্গে একাত্ম হয়ে দেশের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করতে সেনাবাহিনী সদা প্রস্তুত। দেশের অখণ্ডতা, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার আদর্শিক প্রেরণায় সেনাবাহিনীর সদস্যগণ অর্পিত সকল দায়িত্ব নিরলসভাবে পালন করে চলেছে। ’

জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, ‌‘বাংলাদেশ সেনাবাহিনী জঙ্গি দমন থেকে শুরু করে দেশের জন্য বড় ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে।’

এছাড়া অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শুরুতে দেশ ও দেশের বাইরে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে এখন পর্যন্ত যারা শহীদ হয়েছেন তাদের প্রতি শোক ও শ্রদ্ধা জানান সেনাপ্রধান।

সশস্ত্র বাহিনী দিবস ২০১৮ উপলক্ষে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের পক্ষ থেকে ঢাকা সেনানিবাসস্থ ‘আর্মি মাল্টিপারপাস কমপ্লেক্সে’ স্বাধীনতাযুদ্ধে অবদানের জন্য সেনাবাহিনীর খেতাবপ্রাপ্ত সদস্যদের এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের ( আইএস পিআর) এক সংবাদ বিঞ্জপ্তিতে আরো বলা হয়, বৃহস্পতিবার এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সেনাবাহিনীর ৩ জন বীরশ্রেষ্ঠের নিকটাত্মীয়, ৩ জন বীর উত্তম, ১৪ জন বীর বিক্রম ও ২৭ জন বীরপ্রতীক সেনাসদস্যের (সর্বমোট ৪৭ জন) সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে প্রথমবারের মত ২০১৭/২০১৮ সালে শান্তিকালীন সময়ে বিভিন্ন প্রশংসনীয় ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ৯ জন ‘অসামান্য সেবা পদক’ এবং ১৯ জন ‘বিশিষ্ট সেবা পদক’ (বিএসপি) প্রাপ্ত সেনাসদস্যকে সেনাবাহিনী প্রধান পদকে ভূষিত করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে খেতাবপ্রাপ্ত সেনাসদস্যদের মহান মুক্তিযুদ্ধকালীন বীরত্বগাঁথা এবং শান্তিকালীন পদক প্রাপ্তদের প্রশংসনীয় কর্মকান্ডের সারসংক্ষেপ তুলে ধরা হয়।

সেনাবাহিনী প্রধান খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা সেনাসদস্য ও তাদের নিকটাত্মীয়দের সাথে কুশলাদি বিনিময় ও শুভেচ্ছা উপহার প্রদান করেন। এছাড়াও তিনি শান্তিকালীন পদক প্রাপ্তদের সাথে কুশলাদি বিনিময় করেন।

অনুষ্ঠানে প্রাক্তন সেনাবাহিনী প্রধান, সেনাসদরসহ ঢাকায় কর্মরত ঊর্ধ্বতন সেনাকর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সেনাসদরের পক্ষ থেকে প্রতিবছরই জাতীয় গর্ব বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানে এ ধরনের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মন্তব্য

মতামত দিন

জাতীয় পাতার আরো খবর

খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার দেখানোর নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ও জাতিগত বিভেদ সৃষ্ . . . বিস্তারিত

খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানোর নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ও জাতিগত বিভেদ সৃষ্ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com