গ্রেনেড হামলায় ভিকটিমদের পাশে শেখ হাসিনা

১০ অক্টোবর,২০১৮

গ্রেনেড হামলায় ভিকটিমদের পাশে শেখ হাসিনা

নিউজ ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের পরিবার ও আহতরা প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কাছ থেকে নিয়মিত আর্থিক সহায়তা ও অন্যান্য সুবিধাদি পাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল ও বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্ট থেকে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের পরিবার ও আহতদের নিয়োমিত অনুদান দেয়া হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট এবং নিহতদের পরিবারের সদস্য ও আহতসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। খবর বাসসের।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘরের কিউরেটর এন আই খান বাসসকে জানান, গ্রেনেড হামলায় ভিকটিমদের ভোলেননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল ও বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্ট থেকে গ্রনেড হামলায় নিহতের পরিবার ও আহতদের নিয়োমিত অনুদান দেয়া হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্ট থেকে ১১১ পরিবারকে প্রতিমাসে ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা অনুদান দেয়া হয় বলেও জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আজীবন কৃতজ্ঞ থাকবেন গ্রেনেড হামলায় আহত ডেমরার মো. ফিরোজ আলম। তিনি বাসসকে জানান, আমার যে করুণ অবস্থা ছিল, ওই সময় শেখ হাসিনা পাশে না দাঁড়ালে হয়তো বেঁচেই থাকতাম না। প্রধানমন্ত্রী আমাদের জন্য তার সাধ্যমত সহযোগিতা করেছেন। সংসার পরিচালনার জন্য ১০ লাখ টাকার পারিবারিক সঞ্চয়পত্র করে দিয়েছেন। এছাড়াও বঙ্গবন্ধু কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে প্রতি মাসে ৫ হাজার টাকা করে অনুদান পাই।

লিটন মুন্সির বোন ইসমত আরা জানান, গ্রেনেড হামলার পর থেকেই শেখ হাসিনা তাদের বিভিন্ন সময় সহযোগিতা করে আসছেন। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর তিনি তাদের বড় অঙ্কের আর্থিক সহযোগিতা করেছেন, যার অর্ধেক তার ভাবী ও সন্তানেরা এবং বাকি অর্ধেক বাবা-মা পেয়েছেন। এ বছরও প্রধানমন্ত্রী তাদের দুই পরিবারকে ৫ লাখ করে ১০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র করে দিয়েছেন।

শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট সংঘটিত ভয়াবহ হামলায় যারা নিহত হয়েছিলেন, তাদের পরিবার ও আহতদের পাশে সবসময় রয়েছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, হতাহতের পরিবারের সদস্যদের বেসরকারি ও সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরির ব্যবস্থা, ছেলেমেয়েদের উপযুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তিসহ পড়াশুনার খরচ, চিকিৎসা ও ওষধের যোগাড়, বসবাসের জন্য বিনামূল্যে ফ্ল্যাট, ব্যাংকে ফিক্স ডিপোজিট বা পারিবারিক সঞ্চয়পত্র কিনে দিয়ে তাদের দৈনন্দিন জীবনের ব্যয় নির্বাহসহ সকল চাহিদা পুরণ করে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর ছোট বোন শেখ রেহানা পৈতৃক সূত্রে পাওয়া তাদের সম্পত্তি দান করে গঠিত বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্ট থেকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আহতদের বিভিন্ন সময় চিকিৎসা খরচসহ প্রতিমাসে আহতদের চিকিৎসা ও আহত-নিহতদের সন্তানের শিক্ষার জন্য ভাতা দেওয়া হচ্ছে। ২০০৪ সালে এই সহযোগিতার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকে এখনও চলছে।

জানা গেছে, গ্রেনেড হামলায় নিহতদের পরিবারের সদস্য ও আহতদের স্থায়ী অর্থের উৎস হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে পরিবার প্রতি ৫ থেকে ১৫ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র বা ফিক্স ডিপোজিট করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যার লভ্যাংশ দিয়ে নিহতের পরিবার বা আহতদের সংসার খরচ ও ছেলে মেয়েদের পড়াশুনার ব্যয় নির্বাহ করা হয়।

প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন বাসসকে জানান, প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় নিহতের পরিবার ও আহতদের নিয়োমিত অর্থিক অনুদান দেয়া হচ্ছে। এ পর্যন্ত ২৯৩ পরিবারকে অর্থিক অনুদানসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য

মতামত দিন

জাতীয় পাতার আরো খবর

আব্দুর রবের উত্তরার বাসা থেকে ব্যারিস্টার মঈনুল গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: রংপুরের একটি মামলায় সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে আব্দুর র . . . বিস্তারিত

সকলেরই স্বাধীনভাবে রাজনীতি করার অধিকার আছে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com