ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিভ্রাটে স্থগিত সংসদ অধিবেশন

১১ সেপ্টেম্বর,২০১৮

ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিভ্রাটে স্থগিত সংসদ অধিবেশন

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুর গ্রিড থেকে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার আন্তঃবিদ্যুৎ সংযোগ গ্রিডে আরো ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হওয়ার একদিন পরই জাতীয় সংসদ ভবনে ভয়াবহ বিভ্রাটের ঘটনা ঘটলো।

এতে স্থগিত করতে হল জাতীয় সংসদের অধিবেশনও।

সংসদ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার শুধু প্রশ্নোত্তরপর্ব শেষ করে অধিবেশন বুধবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত মুলতবি করেন ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া। এর আগে বিকেল পৌনে ৪টার পরে সংসদ ভবন এলাকার বিদ্যুৎ বিভ্রাট হয়। এসময় সংসদ ভবনের অধিকাংশ ব্লক বিদ্যুৎবিহীন হয়ে পড়েছিল।

সংসদ অধিবেশন ৫টায় শুরুর কথা থাকলেও বিদ্যুৎ বিভ্রাটের মধ্যে জেনারেটর দিয়ে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে তা শুরু হয় ১০ মিনিট পর।

মাগরিবের নামাজের আগে সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে প্রশ্নোত্তর পর্ব শেষ হলে তখন সভাপতিত্বকারী ডেপুটি স্পিকার দিনের অন্যান্য কার্যসূচি স্থগিত করেন।

পরে ফজলে রাব্বী মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, মেঘনাঘাট বিদ্যুৎ কেন্দ্রে সমস্যার কারণে সংসদে বিদ্যুৎ বিভ্রাট হয়েছে। এটা ডিজাস্টার। এই কারণে অধিবেশন মুলতবি করা হয়।

অধিবেশন মুলতবি ঘোষণার পর অবশ্য সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে সংসদ ভবনের বিভিন্ন ব্লকে বিদ্যুৎ ফিরতে শুরু করে।

সংসদ সচিবালয়ের এক কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, বিদ্যুৎ বিভ্রাট শুরু হলে অধিবেশন কক্ষ এবং প্রয়োজনীয় কয়েকটি ব্লকে জেনারেটরের মাধ্যমে কাজ চালানো হয়।

এ বিষয়ে সংসদের গণপূর্ত (বিদ্যুৎ) বিভাগের কোনো কর্মকর্তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

সংসদ ভবন এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহের দায়িত্বে রয়েছে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ডিপিডিসি)।

ডিপিডিসির প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী পরিচালক মো. রমিজ উদ্দিন সরকার সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের জানান, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানির ১৩২ কেভি গ্রিড লাইন ‘ট্রিপ’ করার কারণে মূলত বিদ্যুৎ সরবরাহে বিঘ্ন ঘটেছিল। ডিপিডিসির কোনো সমস্যা ছিল না।

তিনি জানান, বিকাল ৫টার সময় পিজিসিবির লাইনে আগারগাঁওয়ের কাছে সমস্যা দেখা দেয়। আধা ঘণ্টার মধ্যেই তা সমাধান করা হয়েছিল।

ডিপিডিসি প্রকৌশলী বলেন, যেহেতু সংসদ চলছিল, তখন সংসদের জেনারেটর চালু ছিল। লাইন মেরামত হওয়ার কিছু সময় পর সেখানে বিদ্যুৎ দেওয়া হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক।

সংসদের বৈঠকে মঙ্গলবার প্রশ্নোত্তর পর্ব ছাড়াও জরুরি জনগুরুত্বপূর্ণ নোটিস, তথ্য কমিশনের বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন, দুটি বিল নিয়ে স্থায়ী কমিটির প্রতিবেদন, একটি বিল উত্থাপন এবং একটি বিল পাসের কর্মসূচি ছিল।

সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা জানান, স্থগিত হওয়া কর্মসূচিগুলো বুধবার নিষ্পত্তি করা হবে।

মন্তব্য

মতামত দিন

জাতীয় পাতার আরো খবর

হামলার তিন বছর পর কেমন আছেন ঢাকার শিয়ারা

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: বাংলাদেশে শুক্রবার পালিত হয়েছে আশুরা। মুসলমানদের কাছে এ দিনটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। ইসলামের নবী . . . বিস্তারিত

রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে জাতিসংঘে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব দেবেন প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সুনির্দিষ্ট প . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com