বাংলাদেশ বেতার শক্তিশালী গণমাধ্যম হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে: রাষ্ট্রপতি

১২ ফেব্রুয়ারি,২০১৮

রাষ্ট্রপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং দেশ ও জাতির আকাংখাকে ধারণ করে বাংলাদেশ বেতার আরো বহুদূর এগিয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন।

মঙ্গলবার বিশ্ব বেতার দিবস উপলক্ষে আজ সোমবার দেয়া এক বাণীতে তিনি এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘ক্রীড়াঙ্গণে বেতার’।

আবদুল হামিদ বলেন, ‘১৯৩৯ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশ বেতার শক্তিশালী গণমাধ্যম হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের মহান স্বাধীনতা ও মুক্তি সংগ্রামেও বাংলাদেশ বেতার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।’

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১৯৭১ সালের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ বেতারে প্রচার ছিল সাহসী ও তাৎপর্যপূর্ণ সিদ্ধান্ত। মহান মুক্তিযুদ্ধে ‘স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র’ মুক্তিপাগল দেশপ্রেমিক জনতাকে উজ্জীবিত করতে অপরিসীম ভূমিকা পালন করে।

রাষ্ট্রপতি বলেন, দুর্যোগ-দুর্বিপাকে বেতারের সতর্কতামূলক বার্তা সাধারণ মানুষকে সঠিক দিকনির্দেশনা দেয়। বাংলাদেশ বেতারে কৃষি, শিক্ষা, জনসংখ্যা ও স্বাস্থ্যবিষয়ক কার্যক্রমের পাশাপাশি সম্প্রতি ক্রীড়া ক্ষেত্রে বেতার কার্যকর অবদান রেখে যাচ্ছে।

আবদুল হামিদ বলেন, সংবাদ, সরকারের উন্নয়নমূলক কমর্কান্ড, নাটক, বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানসহ দেশে শিল্পসংস্কৃতির বিকাশে বাংলাদেশ বেতার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। দীর্ঘ পথপরিক্রমায় বাংলাদেশ বেতার দেশবাসীর মনে স্থায়ী আসন গড়তে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, ক্রীড়া আজ আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অন্যতম অনুষঙ্গ। ক্রীড়ার চলতি ধারাভাষ্য ক্রীড়ামোদী দর্শক-শ্রোতাদের কেবল উদ্বেলিত করে না, দেশকে বিশ্ব অঙ্গনে তুলে ধরতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। মাঠের খেলোয়াড় ও গ্যালারির দর্শকদের সাথে ক্রীড়া ভাষ্যকার শ্রোতাদের যেমন মাঠে নিয়ে যায় তেমনি তারাও জয়পরাজয়ের দোলাচলে খেলাকে উপভোগ করে।

চারটি বিলে রাষ্ট্রপতির সম্মতি

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ আজ দশম জাতীয় সংসদের ১৯তম অধিবেশনে গৃহীত চারটি বিলে সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।

বিল চারটি হলো, বিদ্যুৎ বিল ২০১৮, বাংলাদেশ জাহাজ পুনঃপ্রক্রিয়াজাতকরণ বিল,২০১৮, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় বিল, ২০১৮ এবং ওয়ান স্টপ সার্ভিস বিল, ২০১৮। সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ এ কথা বলা হয়েছে।
নতুন উদ্ভাবনের মাধ্যমে জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলা করতে হবে: রাষ্ট্রপতি
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ কৃষি ও প্রাণিসম্পদ খাতের অব্যাহত অগ্রগতি নিশ্চিত করতে জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবেলায় নতুন নতুন জাত ও পদ্ধতি উদ্ভাবনে মনোযোগী হতে গবেষক ও বিজ্ঞানীদের প্রতি আহবান জানান।

রাষ্ট্রপতি চট্টগ্রাম ভেটেরিনারী ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যায়ের (সিভিএএসইউ) প্রথম সমাবর্তনে ভাষণকালে বলেন, বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব ইতোমধ্যে আমাদের কৃষিতে পড়তে শুরু করেছে। এ ছাড়া অপরিকল্পিতভাবে রাসায়নিক সার ও কীটনাশকের ব্যবহার মৎস্য ও প্রাণিসম্পদের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলেছে। খবর-বাসস

মন্তব্য

মতামত দিন

জাতীয় পাতার আরো খবর

বিমান বাহিনী প্রধানের ভারতীয় উর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: সফররত বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত সোমবার ভারতের উর্ধ্ . . . বিস্তারিত

সৌদি আরবের পথে প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৌদি বাদশাহ এবং দু’টি পবিত্র মসজিদের খাদেম সালমান বিন আবদুল আজিজ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com