ব্রেকিং সংবাদ: |
  • সিনহার ব্যাংক হিসাবে অস্বাভাবিক লেনদেন, নিরঞ্জন ও শাহজাহানকে দুদকে তলব
  • জিজ্ঞাসাবাদের পর ছাড়া পেলেন বিডিজবসের প্রধান নির্বাহী
  • টরেন্টোর হামলাকারী সম্পর্কে সর্বশেষ যা জানা যাচ্ছে
  • তাবিথ আউয়াল ও আব্দুল হাই বাচ্চুকে দুদকে তলব
  • হঠাৎ কেঁপে উঠলো সিলেট, ৫ দশমিক ২ মাত্রার ভূমিকম্প
  • টরোন্টোয় গাড়িচাপায় প্রাণ গেল ১০ পথচারীর, ট্রুডোর সান্ত্বনা
  • বিজেপির শীর্ষ নেতাদের বক্তব্যে ঢাকার রাজনীতিতে তোলপাড়
  • খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে গেছেন স্বজনরা
  • কাবুলে ভোটার নিবন্ধনকেন্দ্রে হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬৩
  • ২৫ বছরের যুদ্ধে সোয়া কোটি মুসলিম নিহত, যা একটি বিশ্বযুদ্ধের সমান ক্ষয়ক্ষতি
  • খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সপ্তাহব্যাপী বিএনপির নতুন কর্মসূচি ঘোষণা
  • ত্রিভুবন বিমানবন্দরের গাফিলতিই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী: ইউএস-বাংলা
  • যে শর্তে গাজীপুর সিটি নির্বাচনে বিএনপিকে ছাড় দিল জামায়াত

গেজেট প্রকাশে আরো এক সপ্তাহ সময় পেল সরকার

১৭ জুলাই,২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা গেজেট আকারে প্রকাশ করতে সরকারকে আবারো এক সপ্তাহ সময় দিয়েছে আপিল বিভাগ।

সোমবার গেজেট প্রকাশে রাষ্ট্রপক্ষের সময় আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে সাত বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে দুই সপ্তাহ সময় চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষে আবেদন ও এর শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। পরে আবেদনটির শুনানি শেষে আদালত এক সপ্তাহ সময় মঞ্জুর করেন।

এর আগে রবিবার সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার সঙ্গে প্রায় এক ঘণ্টা রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

দেশের উচ্চ আদালতের বিচারক সঙ্কটের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিষয়টি বিবেচনায় রয়েছে।’

তবে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের নতুন চেয়ারম্যান বিচারপতি নিয়োগের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।

ওইদিন সকালে অধস্তন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলা সংক্রান্ত বিধিমালা গেজেট আকারে প্রকাশ করতে সরকারকে দেওয়া ২ সপ্তাহ সময় শেষ হওয়ার পরও ‘আজ নয় কাল’ বলে উঠে যান প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। তার সঙ্গে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চের অবশিষ্ট পাঁচ বিচারপতিও (সর্বমোট ৬ সদস্যের আপিল বেঞ্চ) নিজ কামরায় ফিরে যান।

এর ফলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা কোনো রকম শুনানি করার সুযোগ পাননি। তবে বহুল আলোচিত এ মাসদার হোসেন মামলাটি সোমবার শুনানি হবে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা।

নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা প্রণয়ন না করায় আইন মন্ত্রণালয়ের দুই সচিবকে গত ১২ ডিসেম্বর তলবও করেছিলেন আপিল বিভাগ।

গত বছরের ৭ নভেম্বর বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা ২৪ নভেম্বরের মধ্যে গেজেট আকারে প্রণয়ন করতে সরকারকে নির্দেশ দিয়েছিলেন আপিল বিভাগ।

উল্লেখ্য, ১৯৯৯ সালের ২ ডিসেম্বর মাসদার হোসেন মামলায় ১২ দফা নির্দেশনা দিয়ে রায় দেওয়া হয়। ওই রায়ের আলোকে নিন্ম আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা প্রণয়নের নির্দেশনা ছিল।

মন্তব্য

মতামত দিন

জাতীয় পাতার আরো খবর

ইসরাইলি নৃশংসতার ভিডিও ভাইরাল!

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: ইসরাইলি নৃশংসতার অনেকগুলো ভিডিও ভাইরাল হবার পর অজানা এক কারণে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ তা সরিয়ে ন . . . বিস্তারিত

বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা হয়েছে। ‘ধর্ষকের কাছে নারীর ক . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com