ফুটপাতে হাঁটাচলা নাগরিক অধিকার: আনিসুল হক  

২০ এপ্রিল,২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: রাজধানীর গুলশানের কূটনৈতিক এলাকায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে। বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে রাশিয়ান দূতাবাসের পাশের ফুটপাত ঘিরে রাখা বেড়া এবং রাস্তাজুড়ে রাখা ফুলের গাছ সরানো হয়।

ঢাকা উত্তর সিটি মেয়র আনিসুল হক বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এ রাস্তাটি দখলের কারণে চলাচল অনুপযোগী ছিল কিন্তু শনিবার উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে নগরবাসীর জন্য রাস্তাটি উন্মুক্ত করা হবে।

আমেরিকান অ্যাম্বাসী দীর্ঘ ১০ বছর ফুটপাতে হাঁটতে দেয়নি উল্লেখ করে আনিসুল হক বলেন, ফুটপাতে হাঁটাচলা নাগরিক অধিকার। এ অধিকার কারো দ্বারা ক্ষুণ্ন হতে দিতে পারি না। তাই আমরা অ্যাম্বাসীগুলোর ফুটপাতগুলোতে এ অভিযান চালাচ্ছি। অবশ্যই তাদের নিরাপত্তা অক্ষুণ্ন রেখে এবং আলোচনা সাপেক্ষে।
 
তিনি বলেন, শুধু ফুটপাতই নয়, জেনে না জেনে অনেক অ্যাম্বাসী রাস্তার অংশও দখলে রেখেছিল এতোদিন। বিষয়টি উপলব্ধি করে এবং তাদের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে সেই দখলকৃত রাস্তা ও ফুটপাতগুলো সাধারণ পথচারীদের জন্য উন্মুক্ত করতে এসব এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান শুরু কিরেছি। তারই পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার রাশিয়ান ও সৌদি অ্যাম্বাসীর সামনের ফুটপাতে রাখা তাদের ব্লকগুলো অপসারণ করা হচ্ছে। আমেরিকা ও কানাডা অ্যাম্বাসী নিজেদের মতো করে অপসারণ করেছে।

এতে করে পথচারীরা এখন ওসব ফুটপাত দিয়ে চলতে পারছে। এছাড়া পাকিস্তান ও ইতালি অ্যাম্বাসীর সামনে অভিযান চালিয়ে সেখানকার ফুটপাতগুলো উন্মুক্ত করা হয়েছে বলেও জানালেন এই উত্তর সিটি মেয়র।

উত্তর সিটি করপোরেশন সূত্রে, ২৮ ফেব্রুয়ারি সিটি করপোরেশনের পক্ষে ৮ টি অ্যাম্বাসীকে এ সংক্রান্ত চিঠি দেওয়া হয় এবং তাদের সাড়া পেয়েই এ উচ্ছেদ অভিযান। অ্যাম্বাসীগুলো হলো, অ্যামেরিকা, পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, ইউকে, কানাডা, ইতালি, রাশিয়া ও সৌদি আরব।

মন্তব্য

মতামত দিন

জাতীয় পাতার আরো খবর

রেল লাইনে মরণফাঁদ বন্ধ হয় না কেন?

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: দেশে গত ক’দিনে রেলে কাটা পড়ে মৃত্যুর একাধিক ঘটনার পর তা নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। একটি ঘট . . . বিস্তারিত

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে দেরি হলে কী করবে বাংলাদেশ?

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: বিশ্বের যেসব দেশে বিপুল সংখ্যায় শরণার্থী অবস্থান করছে বাংলাদেশ তার একটি। কর্মকর্তারা বলছেন, বাং . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com