কর দিতে হবে ‘উবার’-‘পাঠাও’কেও

০৮ জুন,২০১৮

কর দিতে হবে ‘উবার’-‘পাঠাও’কেও

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন 
ঢাকা: ‘উবার’-‘পাঠাও’সহ দেশের অন্যান্য অ্যাপভিত্তিক পরিবহনসেবা কোম্পানিগুলোকে তাদের আয়ের ওপর ৫ শতাংশ কর (ভ্যাট) আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

বৃহস্পতিবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এক আদেশে এ কথা জানায়।

জাতীয় সংসদে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সেখানে বিষয়টি উল্লেখ আছে।

এনবিআর বলছে, বর্তমানে উবার, পাঠাওয়ের মতো মোবাইল অ্যাপভিত্তিক বিভিন্ন পরিবহনের রাইড শেয়ারিং সেবা দ্রুত জনপ্রিয় হয়েছে। কিন্তু সেবাটি মূল্য সংযোজন কর (মূসক) আইন ১৯৯৯-এর দ্বিতীয় তফসিলভুক্ত না হওয়ায় মূসক অব্যাহতি সুবিধা ভোগ করে না। সেবাটি ‘ভার্চ্যুয়াল বিজনেস’ সেবার অন্তর্ভুক্ত।

বিভিন্ন ব্যক্তিগত পরিবহনের মালিক নিজে কিংবা চালক নিয়োগ করে এই সেবা দিয়ে থাকেন। সেবার বিপরীতে যাত্রী নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছানোর পর চালককে মূল্য পরিশোধ করেন। গাড়ির চালক যাত্রীর কাছ থেকে যে সেবামূল্য পান, এর একটি অংশ সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানকে (উবার/পাঠাও) দিতে হয়। মূল্য সংযোজন কর (মূসক) আইন ১৯৯৯-এর দ্বিতীয় তফসিলের অনুচ্ছেদ-৬-এর (গ) মোতাবেক সব বাহনের চালক প্রদত্ত সেবার জন্য ব্যক্তিগত সেবা হিসেবে মূসক অব্যাহতি-সুবিধা ভোগ করেন। সুতরাং গাড়িচালক সেবা প্রদানের বিপরীতে যে সেবামূল্য পাবেন, সেটা মূসকের আওতামুক্ত থাকবে। তবে সেবার বিপরীতে অ্যাপস পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানের (উবার/পাঠাও) প্রাপ্ত সর্বমোট সেবামূল্যের ওপর নিট ৫ শতাংশ হারে মূসক আদায়যোগ্য হবে। বিষয়টি জাতীয় সংসদে তুলে ধরে এনবিআর। আ্যাপভিত্তিক এসব পরিবহনসেবা কর্তৃপক্ষকে তাদের আয়ের ওপর ৫ শতাংশ কর দিতে হবে বলেও স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়।

মন্তব্য

মতামত দিন

অর্থনীতি পাতার আরো খবর

ব্যাংক ঋণ ও আমানতের সুদ কমালে কার লাভ?

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: বাংলাদেশে ব্যাংক ঋণ ও আমানতের সুদের হার এক অঙ্কে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকারি ও বেসরকার . . . বিস্তারিত

ইসলামী বন্ড চালু করার ইঙ্গিত দিয়েছে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: বাংলাদেশে শরিয়াভিত্তিক ইসলামী বন্ড চালুর বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করছে সরকার। প্রস্তাবিত বাজেটও . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com