কালো তালিকাভুক্ত মিল থেকেও বোরো চাল সংগ্রহ করা হবে: খাদ্যমন্ত্রী

১৫ এপ্রিল,২০১৮

কালো তালিকাভুক্ত মিল থেকেও বোরো চাল সংগ্রহ করা হবে: খাদ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: বর্তমানে সরকারি গুদামগুলোতে মজুদ আছে প্রায় ১২ লাখ মেট্রিক টনের উপরে। দেশের খাদ্য গুদামগুলোতে গত ২০ বছরের মধ্যে সর্বাধিক পরিমাণ মজুদ রয়েছে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

রবিবার খাদ্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে খাদ্য অধিদপ্তর আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন মন্ত্রী। এসময় খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জনাব বদরুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ওমর ফারুক, খাদ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আরিফুর রহমান অপুসহ খাদ্য অধিদপ্তরের এবং মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

কামরুল ইসলাম বলেন, এবার এক লাখ মেট্রিকটন ধান এবং নয় লাখ মেট্রিক টন চাল সংগ্রহ করা হবে। ধান প্রতি কেজি ২৬ টাকা দরে এবং চাল প্রতি কেজি ৩৮ টাকা দরে সংগ্রহ করা হবে। তিনি বলেন, আশা করছি এবার প্রকৃতি বিরূপ হবে না।

কালো তালিকাভুক্ত মিলগুলোর বিষয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, গত আমন মৌসুমে কালো তালিকাভুক্ত মিলগুলো থেকে চাল সংগ্রহ করা হয়নি। কিন্তু এবার আমরা কাউকে হতাশ করতে চাই না। তাদের কাছ থেকে এবার বোরো চাল সংগ্রহ করা হবে বলে নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

উপস্থিত সব কর্মকর্তাদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি এবং আমন সংগ্রহ অভিযান সফলভাবে শেষ হয়েছে। সংগৃহীত চালের মানও খুব ভালো। এজন্য আপনাদের সবাইকে আমি ধন্যবাদ জানাই। তবে চলমান বোরো সংগ্রহে কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী দুর্নীতি, অনিয়ম করলে প্রশাসনিক ব্যবস্থাসহ কঠিন শাস্তি দেওয়া হবে।’

মন্তব্য

মতামত দিন

অর্থনীতি পাতার আরো খবর

গার্মেন্ট শ্রমিকদের দাবি ১২ হাজার, মালিকরা দিতে চান অর্ধেক

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: তৈরি পোশাক খাতের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি নির্ধারণের ক্ষেত্রে নিজেদের আগের দাবি থেকে সরে এসেছেন শ . . . বিস্তারিত

কাঁচা মরিচের চড়া দামে উদ্বিগ্ন ক্রেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: গেল ঈদুল ফিতরের সপ্তাহ খানেক পর বেড়েছিল কাঁচা মরিচের দাম। এখন পর্যন্ত তা অব্যাহত রয়েছে। নি . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com