ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস কমিয়ে দিয়েছে আইএমএফ

১১ অক্টোবর,২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আরটিএনএন

ঢাকা: ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য ভারতের জিডিপি প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস আগের চেয়ে কমিয়ে দিয়েছে আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিল (আইএমএফ)। সংস্থাটির নতুন হিসেবে সংশ্লিষ্ট সময়ে ভারতের ৬.৭% প্রবৃদ্ধি হবে বলে আভাস দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার প্রকাশিত আইএমএফ’র ওয়ার্ল্ড ইকনমিক আউটলুকে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়।

এর আগে এপ্রিল-জুলাই রিপোর্টে আইএমএফ আভাস দিয়েছিলো যে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ভারতের জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৭.২%।

আইএমএফ’র মতে মুদ্রানোট বাতিলকরণ ও জিএসটি ঘিরে অনিশ্চয়তার ফলে দেশটির অর্থনীতিতে এই নিম্নগতি সৃষ্টি হয়েছে।

আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানটি ২০১৮-১৯ বছরের জন্যও ভারতের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭.৭% থেকে কমিয়ে ৭.৪% করেছে।

আইএমএফ রিপোর্টে বলা হয়, ‘ভারতের প্রবৃদ্ধির গতি ধীর হয়ে পড়েছে। কর্তৃপক্ষ মুদ্রানোট বাতিলের যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো তার দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। এছাড়া সারা দেশে বাধ্যতামূলকভাবে যে পণ্য ও সেবা কর (জিএসটি) চালু করা হয়েছে তা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।’

২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে ভারতের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৫.৭ শতাংশে নেমে আসে।

তবে, মধ্য মেয়াদে জিএসটি ভারতের প্রবৃদ্ধিকে ৮ শতাংশে নিয়ে যেতে পারে বলে আইএমএফ রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়।

অন্যদিকে, একই সময়ে চীনের ৬.৮% প্রবৃদ্ধি হবে বলে আইএমএফ জানায়। ২০১৮-১৯ সালে চীনের প্রবৃদ্ধির আভাস দেয়া হয়েছে ৬.৫%, যা ভারতের প্রবৃদ্ধি থেকে কম।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি ‘ইন্ডিয়া রেটিং’ ২০১৭-১৮ অর্থবছরের ভারতের প্রবৃদ্ধির ব্যাপারে যে আভাস দেয় তার সঙ্গে আইএমএফ’র আভাস মিলে গেছে।

ইন্ডিয়া রেটিং জানায়, ভারতের অর্থনীতির ওপর মুদ্রানোট বাতিল ও জিএসটি’র বিপর্যকর প্রভাব পড়েছে কল্পনার চেয়েও বেশি।

গত ২ অক্টোবর ফিচ রেটিং ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির আভাস আগের ৭.৪% থেকে কমিয়ে ৬.৯% নির্ধারণ করে।

মন্তব্য

মতামত দিন

অর্থনীতি পাতার আরো খবর

পোশাক রপ্তানিতে ভারত বাংলাদেশকে পেছনে ফেলছে

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: পোশাক রপ্তানিতে বাংলাদেশ ক্রমেই পিছিয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে ভারত। এর কারণ সুষ্ঠু . . . বিস্তারিত

‘তন্নতন্ন করেও জামায়াত-শিবিরকে ইসলামী ব্যাংকের অর্থায়নের প্রমাণ পাইনি’

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: জামায়াত-শিবিরকে অর্থায়নে ইসলামী ব্যাংক জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি উল্লেখ করে ইসলাম . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com