আ’লীগে থেকে লাভ কী, বিএনপিতে যোগ দেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি: ওবায়দুলকে রিজভী

০৭ ফেব্রুয়ারি,২০১৯

রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: ‘মিডনাইট ইলেকশনের সরকারের মন্ত্রী হিসেবে ওবায়দুল কাদের সাহেব স্বেচ্ছায় বিএনপির উপদেষ্টা হতে চলেছেন। সুতরাং খামোখা আওয়ামী লীগে থেকে তার লাভ কী, বরং ওবায়দুল কাদের সাহেবকে বিএনপিতে যোগ দেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

ওবায়দুল কাদেরকে বিএনপিতে যোগ দেয়ার আহ্বান জানালেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ কথা বলেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এসব কথা বলেন।

এসময় অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শাহিদা রফিক, নজমুল হক নান্নু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহ দপ্তর সম্পাদক মো. মনির হোসেন, জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রতিনিয়ত বিএনপিকে উপদেশ দিচ্ছেন। সভা-সমিতি, মঞ্চ, গণমাধ্যম ও ব্রিফিংয়ে বিএনপির কী করা উচিত, বিএনপির পরিণতি কী হবে, বিএনপি নির্বাচন ভীতিতে ভুগছে, বিএনপি সংসদে যোগ দেবে ইত্যাদির নানা কথার খই ফোটাচ্ছেন প্রতিদিন। সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রী হিসেবে ওবায়দুল কাদের সাহেব শালীনতা, ভব্যতার গুনমান বিবেচনা না করে বিএনপির বিরুদ্ধে ক্রমাগত উপদেশের ভাঙা টেপ রেকর্ড বাজিয়েই চলেছেন।

বিএনপির দরজা খোলা আছে জানিয়ে তিনি বলেন, এমনিতেই অনাচারের পাহাড়সম স্তুপে আওয়ামী নেতাকর্মীরা ভীতসন্ত্রস্ত। কখন কী হয় আতঙ্কে তাদের সারাদিন কাটে। বিভিন্ন এলাকায় তারা তলে তলে বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ রাখা শুরু করেছে। নিজেদের ভবিষ্যৎ নিয়ে আওয়ামী নেতাকর্মীরা আসলেই উদ্বিগ্ন। ক্ষমতার বৃক্ষ উপড়ে যাওয়ার পর অনাগত ভবিষ্যৎ নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা গভীর দুশ্চিন্তার মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। সে জন্য স্বেচ্ছায় বিএনপিতে উপদেষ্টার আসনে বসতে যাচ্ছেন ওবায়দুল কাদের সাহেবসহ অন্য নেতারা।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, আজ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে প্রতিহিংসা পূরণের সাজা দেয়ার এক বছর পূর্ণ হলো। চরম অবিচার অন্যায়ের আঘাতে বেগম খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করা হয়েছে। এটি ছিল রাজনৈতিক প্রতিহিংসার সাজা।

তিনি আরও বলেন, তিনবারের সাবেক একজন প্রধানমন্ত্রীকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে এক বছর কারাগারে রাখার নজির পৃথিবীর কোথাও নেই। বেগম জিয়ার মুক্তি আইন ও বিচারের ওপর নির্ভরশীল নয়, এটি নির্ভরশীল শেখ হাসিনার মর্জির ওপর। সুতরাং আইন আদালতকে প্রভাবিত করেই বেগম জিয়াকে বন্দি করে রাখা হয়েছে। আমরা এই মুহূর্তে তার নিঃশর্ত মুক্তি চাই।

মন্তব্য

মতামত দিন

রাজনীতি পাতার আরো খবর

২২ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্ট অডিটরিয়ামে গণশুনানি করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) সুপ্রিম কোর্ট অডিটরিয়ামে গণশুনানি কর্মসূচি পালন করবে জাতীয় . . . বিস্তারিত

জামায়াতে ইসলামীর নতুন সংগঠন হলে সেখানে ‘ইসলাম’ শব্দ থাকবে?

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: বাংলাদেশে ইসলামপন্থী দল জামায়াতে ইসলামীর গুরুত্বপূর্ণ একজন নেতা ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাকের পদ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com