হাসিনাকে নামান, হুদাকে নামান: গয়েশ্বর

০৯ নভেম্বর,২০১৮

হাসিনাকে নামান, হুদাকে নামান-গয়েশ্বর

নিজেস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
রাজশাহী: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, আমরা যদি সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করি এদেশের মানুষ আমাকে আপনাকে ছাড়বেন না। তাই বলছি হুদাকে নামান, শেখ হাসিনাকে নামান। আমরা নির্বাচনে গেলে জয়ী হবো যদি ভোট দিতে পারি।

শুক্রবার(৯ ডিসেম্বর) রাজশাহীর আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন কে এম নুরুল হুদা এবং শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে গেলে হাসিনা আজীবন প্রধানমন্ত্রী, খালেদা জিয়া আমৃত্যু কারাগারে এবং তারেক জিয়া আজীবন নির্বাসনে থাকবেন।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, একাত্তরের পুলিশ ভাইয়েরা চাকরি ছেড়ে মুক্তিযুদ্ধে যোগ দিয়েছিল। আজকে সকল শ্রেণী-পেশার মানুষকে আহ্বান করব। গণতান্ত্রিক আন্দোলনে যোগ দিন। পুলিশের উর্ধোতন কর্মকর্তাদের বলব, আপনারা সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় ভেবে চিন্তে সিদ্ধান্ত নিন। তা নাহলে আপনাকে, আমাকে জনগণ ক্ষমা করবে না।

জনসভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, তারেক জিয়ার মুক্তি চাই। এই মুক্তি কার কাছে চান? আমরা কি তাদের মুক্তি দিতে পারি।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, আজ যখন এই শহরে আসি তখন দেখি কোন লোক নেই, জন নেই। যেন কারফিউ জারি করা হয়েছে। কোন লোককে আসতে দেবে না। গাড়ি নেই। এর আগে বিভিন্ন শহরে যখন সমাবেশ করেছি। তখনও একই রকম কারফিউ জারি করা হয়েছে। এরপরও আমি দেখতে পাচ্ছি আমার সামনে দিয়ে বাধ ভাঙা জোয়ারের মতো মানুষ আসছে। এই মানুষ আসবে। জোয়ার বন্ধ করা যাবেনা। যতো বাধা দেয়া হোক না কোন কাজ হবে না।

মন্তব্য

মতামত দিন

রাজনীতি পাতার আরো খবর

বন্দী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: দুই মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে জেলখানায় বন্দী বিএনপি চেয়ারপর্সনের বিরুদ্ধে ধর্মীয় উস্কানির এক . . . বিস্তারিত

জনগণের আস্থা ও বিশ্বাসের মূল্য দিতে সবার জন্য কাজ করবো: প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেছেন, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে জনগণের প্রদত্ত আস্থ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com