দারিদ্র্যের হার ৪০ থেকে ২১ শতাংশে নামিয়ে এনেছি: শেখ হাসিনা

১১ অক্টোবর,২০১৮

দারিদ্র্যের হার ৪০ থেকে ২১ শতাংশে নামিয়ে এনেছি: শেখ হাসিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: বৃহস্পতিবার সকালে গণভবনে এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়নই সরকারের লক্ষ্য বলে মন্তব্য করেন ।তিনি বলেন, এত অল্প সময়ে কোনো দেশ এতটা উন্নতি করতে পারেনি।

অনুষ্ঠান থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ২০ জেলায় ৩৩টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্যে রয়েছে সেতু, নগর স্বাস্থ্যকেন্দ্র, মাতৃসদনসহ বিভিন্ন প্রকল্প।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের যে লক্ষ্য ছিল, বাংলাদেশকে আমরা উন্নত ও সমৃদ্ধ করব, দারিদ্র্য দূর করব। সে ব্যাপারে আমরা সাফল্য অর্জন করেছি। দারিদ্র্যের হার ৪০ থেকে ২১ শতাংশে নামিয়ে এনেছি। বাংলাদেশের মানুষের আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। আমরা সবার বেতন-ভাতা বৃদ্ধি করেছি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘সব দিক থেকে মানুষ যেন একটু ভালোভাবে বাঁচতে পারে, তার ব্যবস্থা করেছি।’ এ সময় কক্সবাজারসহ বিভিন্ন জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

উন্নয়নকাজ শেষে তা রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব জনগণের বলে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী আরো জানান, ২০০৮ সালে নির্বাচিত হওয়ার পর নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী, জনগণের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। যার ফলে এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে দিনবদলের যাত্রা।

এত অল্প সময়ে কোনো দেশ এতটা উন্নতি করতে পারেনি উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান সরকারের সময়ে দেশের মানুষের দিনবদলের যাত্রা শুরু হয়েছে। ক্ষুধা-দারিদ্র্য কমানো, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে দেশ এগিয়েছে।

মন্তব্য

মতামত দিন

রাজনীতি পাতার আরো খবর

মাসুদা-মইনুল বিতর্কে ঢুকে পড়লেন তসলিমা নাসরিন

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি ও ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে নিয়ে যখন বিতর্ক তুঙ্গে, ঠিক তখনই নির্বাসিত ব . . . বিস্তারিত

জামায়াত ও তারেক জিয়ার সাথে জাতীয় ঐক্যের সম্পর্ক নাই: ড. কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: গণফোরামের সভাপতি ও সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেন বলেছেন, জামায়াত এবং তারেক জিয়ার সাথে জাত . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com