সর্বশেষ সংবাদ: |
  • বিএনপি নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর প্রার্থিতা বৈধ করবে বলে জানিয়েছেন আদালত, অ্যাটর্নি জেনারেলের মতামত নেওয়ার পর আদেশ
  • তিন আসনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে দায়ের করা রিটের শুনানি চলছে
  • সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সংবিধান, ভোটার ও রাজনৈতিক নেতাদের কাছে দায়বদ্ধ নির্বাচন কমিশন : সিইসি

কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

১৬ এপ্রিল,২০১৮

কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: রাজধানীর চাঁনখারপুল এলাকা থেকে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ৩ নেতাকে একটি সাদা মাইক্রোবাসে তুলে নেয়ার অভিযোগ করেছে পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতারা। তারা হচ্ছেন- পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর, ফারুক হাসান, রাশেদ খানকে সাদা পোশাকের পুলিশ একটি মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে গেছে।

তবে এরমধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতা ফিরে এসেছেন। সোমবার বিকেল পৌনে তিনটার দিকে তারা ক্যাম্পাসে ফিরে আসেন। এই তিনজন জানান, ক্যাম্পাস থেকে তাদের ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। পরে ছেড়ে দেয়া হয়। এ বিষয়ে বিকেল চারটায় সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান তারা।

মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য বলেন, ‘কথা বলার জন্য কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে ডিবি কার্যালয়ে আনা হয়েছিল। পরে তারা চলে গেছেন।’

এর আগে সোমবার দুপুরে সংগঠনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন অভিযোগ করেন, সংবাদ সম্মেলন শেষে চানখারপুলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের সামনে থেকে একটি সাদা মাইক্রোবাসে তুলে নেয়া হয় তাদের।

এর আগে সোমবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সংবাদ সম্মেলন করেন আন্দোলনকারীরা। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন নুরুল হক নুর, যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান ও ফারুক হাসান।

সোমবার দৈনিক ইত্তেফাকে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের বিষয়েও আপত্তি তোলা হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে। ‘কোটা আন্দোলনের সেই চার নেতার একজন শিবিরের সক্রিয় কর্মী’ শিরোনামের ওই প্রতিবেদনের বিষয়ে বক্তরা বলেন, ‘ইত্তেফাক বিকেল ৫টার মধ্যে ক্ষমা না চাইলে কাল থেকে সকল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সমাজ পত্রিকাটি বর্জন করবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও অভিযোগ করা হয়, একটি কুচক্রীমহল আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে। প্রধানমন্ত্রী যখন ছাত্র সমাজের ক্ষোভের কথা বুঝতে পেরে দাবি মেনে নিয়েছেন তখন একটি মহল এটি বানচালের চেষ্টা করছে।

সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে আন্দোলন হয়ে আসছিল। গত সপ্তাহে তা ব্যাপক আকার ধারণ করলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদে কোটা ব্যবস্থা বাতিলের ঘোষণা দেন। যদিও এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত প্রজ্ঞাপন জারি হয়নি।

মন্তব্য

মতামত দিন

রাজনীতি পাতার আরো খবর

মঈন খানের প্রচারণায় ছাত্রলীগ-যুবলীগের তাণ্ডব, ভাঙচুর ও লুট

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: নরসিংদী-২ পলাশ আসনে বিএনপির প্রার্থী ড. আব্দুল মঈন খানের নির্বাচনী প্রচারণায় যুবলীগ ও ছাত্ . . . বিস্তারিত

নোয়াখালীতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে ও মাথা থেঁতলে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএননোয়াখালী: নোয়াখালীতে সদর উপজেলার এওজবালিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফকে (২৪) গুলি . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com