সর্বশেষ সংবাদ: |
  • গাজীপুরের টঙ্গীর আরিচপুরে দুইপক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত, আশঙ্কাজনক অবস্থায় একজন হাসপাতালে
  • নির্বাচনের মাঠ এখনও লেভেল প্লেয়িং হয়নি: ড. কামাল
  • প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন চায় না নির্বাচন কমিশন, প্রার্থীদের সমান সুযোগ নিশ্চিতে নিরপেক্ষতার প্রশ্নে ছাড় নয় : কমিশনার শাহাদাত
  • বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শুরু হবে ১৮ নভেম্বর, প্রথম দিন রাজশাহী ও রংপুর বিভাগ

নির্বাচনে অংশ না নিলে বিএনপি ক্ষতিগ্রস্ত হবে: তোফায়েল

১৩ নভেম্বর,২০১৭

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়ার বক্তব্য অপ্রত্যাশিত, নির্বাচনে অংশ না নিলে ২০১৪ সালের চেয়েও বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে তোফায়েল আহমেদ এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‌‘সংবিধান অনুযায়ী আগামী নির্বাচন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচন ঠেকানোর ক্ষমতা বিএনপির নেই। আগেও তারা (বিএনপি) নির্বাচন ঠেকানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে। সামনেও হবে।’

খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেওয়া হলে দেশে আগামী নির্বাচন হবে না, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এই বক্তব্যের জবাবে তোফায়েল বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে যাবেন কি যাবেন না, এটা সম্পূর্ণই আদালতের বিষয়। কিন্তু খালেদা জিয়ার কারাগারে যাওয়া না যাওয়ার সঙ্গে আগামী নির্বাচনের কোনো সম্পর্ক নেই।’

বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে বিএনপির মহাসচিব হিসেবে অনেক কিছুই বলতে হয়। এটা কতুটুকু বাস্তবসম্মত তিনি তা ভালো করেই জানেন। কথার কথা হিসেবে তিনি অনেক কিছুই বলেন। মূল কথা হলো আগামী নির্বাচন যথাসময়েই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই অনুষ্ঠিত হবে। আর এ নির্বাচনে বিএনপি বেশ ভালোভাবেই অংশ নেবে।’

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘পৃথিবীর অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশে যে পদ্ধতিতে নির্বাচন হয় বাংলাদেশেও একইভাবে হবে। আমেরিকাতেও ক্ষমতাসীন সরকারের অধীনেই নির্বাচন হয়। কাজেই এটা নিয়ে নতুন করে আর বিতর্কের কিছু নেই। নির্বাচনকালীন নির্বাহী ক্ষমতা থাকবে প্রধানমন্ত্রীর হাতেই।’

এর আগে রোববার রাজধানীর একটি হোটেলে এফবিসিসিআই-এর একটি অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছিলেন, একটি দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা থাকলে সেই দেশের উন্নতি কেউ ঠেকাতে পারবে না। এই সরকারের মেয়াদ শেষের ৯০ দিনের মধ্য পরবর্তী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই সেই নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে বলেও মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

এই অনুষ্ঠানে দেশের রপ্তানি বাণিজ্যে অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে ১৩১ জন ব্যবসায়ীকে বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি) কার্ড দেওয়া হয়। তাঁরা কার্ড পেয়েছেন রপ্তানি খাতে। সিআইপি কার্ড পাওয়া বাকি ৩৩ জন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) পরিচালক। তাঁরা পদাধিকার বলে কার্ড পেয়েছেন। ২২টি ক্যাটাগরিতে সিআইপি কার্ড দেওয়া হয়।

মন্তব্য

মতামত দিন

রাজনীতি পাতার আরো খবর

‘বেগম খালেদা জিয়া: হার লাইফ, হার স্টোরি’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন রবিবার

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার জীবনী নিয়ে ‘বেগম . . . বিস্তারিত

১৪ দলের সঙ্গে জোটবদ্ধ হয়ে নির্বাচনে যাওয়ার চেষ্টা চলছে: বি. চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com