ভিআইপি সংস্কৃতিতে নিয়ন্ত্রণ ভারতে, বাংলাদেশে হবে কি?

২০ এপ্রিল,২০১৭

নিউজ ডেস্ক

আরটিএনএন

ঢাকা: রাস্তাঘাটে ‘ভিআইপি’ কালচার বন্ধ করতে কথিত ভিআইপিদের গাড়িতে লালবাতি জ্বালানো নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার।


পহেলা মে থেকেই অ্যাম্বুলেন্স কিংবা ফায়ার সার্ভিসের মতো জরুরী সেবার যানবাহন ছাড়া আর কোনো যানবাহনে কেউ লালবাতি জ্বালাতে পারবেনা।


ভারতে মন্ত্রী ও পদস্থ কর্মকর্তারা অনেকেই গাড়ির ছাদে এ ধরণের লালবাতি জ্বালাতেন, যা থেকে বোঝা যেতো তারা বেশ ভিআইপি।


বাংলাদেশে মন্ত্রী ও পদস্থ কর্মকর্তারা নিজের গাড়িতে লালবাতি না জ্বালালেও ভিআইপি সংস্কৃতি অত্যন্ত প্রকট।


তাদের অনেকের গাড়ির সামনে বা পিছনে থাকা গাড়িতে অহরহ সাইরেন আর বিকট শব্দের হর্ন বাজানো হয়।


এসব ভিআইপিদের অনেকে পুলিশী প্রটেকশন সামনে পিছনে নিয়ে রং সাইড দিয়ে রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী চলাচল করেন।


দুদেশেই সমালোচকরা অনেকেই মনে করেন এসব কিছু আসলে তারা করেন তাদের ক্ষমতা বা তারা যে ভিআইপি সেটা বোঝানোর জন্য, যা আসলে অনেক সময় যানজটসহ নানা সমস্যার জন্ম দেয়।


ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি লালবাতি বন্ধের ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, যে বিধির ব্যবহার করে লালবাতি ব্যবহার করা হয় সেটি বাতিল করা হয়েছে।


প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘প্রত্যেক ভারতীয়ই স্পেশাল। প্রত্যেক ভারতীয়ই ভিআইপি।’


তবে বাংলাদেশে ভিআইপিদের আসা যাওয়ার সময় রাস্তা বন্ধ করা, গাড়ির উল্টো পথে যাত্রা কিংবা এ ধরনের কথিত ভিআইপি কালচার বন্ধের তেমন কোনো উদ্যোগ চোখে পড়েনা।


সূত্র: বিবিসি

মন্তব্য

মতামত দিন

রাজনীতি পাতার আরো খবর

সরকারের দুর্বলতার কারণেই জঙ্গিবাদের সৃষ্টি হয়েছে: নজরুল

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনপাবনা: সরকারের দুর্বলতার কারণেই জঙ্গিবাদের সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির . . . বিস্তারিত

অসুস্থ প্রতিযোগিতা রাজনীতির জন্য শুভকর নয়: কাদের

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনচট্টগ্রাম: অসুস্থ প্রতিযোগিতা রাজনীতির জন্য শুভকর নয় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্প . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com