ব্রেকিং সংবাদ: |
  • কাবুলে ভোটার নিবন্ধনকেন্দ্রে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ৩১
  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য বিশেষ সেল গঠনের দাবি জানিয়েছেন
  • খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সপ্তাহব্যাপী বিএনপির নতুন কর্মসূচি ঘোষণা
  • ত্রিভুবন বিমানবন্দরের গাফিলতিই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী: ইউএস-বাংলা
  • যে শর্তে গাজীপুর সিটি নির্বাচনে বিএনপিকে ছাড় দিল জামায়াত

ভারতের সঙ্গে যদি কোনো চুক্তি হয়, সেটা হবে পানির চুক্তি: খন্দকার মোশাররফ

১৮ মার্চ,২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, তিস্তার পানির চুক্তি ছাড়া ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের আর কোনো জরুরি বিষয় নেই।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের যদি কোনো চুক্তি হয় সেটা হবে তিস্তার পানির চুক্তি।

শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় কচি-কাঁচার মিলনায়তনে এক স্বরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির সাবেক মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের ৬ষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মরণসভার আয়োজন করে খোন্দকার দেলোয়ার হোসেন স্মৃতি ফাউন্ডেশন।

তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যা নিশ্চিত করে চুক্তি করতে হবে মন্তব্য করে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আজকে আমরা শুনতে পাই প্রধানমন্ত্রী ভারতে সফরে যাবেন। আমরা কিছু জানি না, জনগণ কিছু জানে না, পার্লামেন্ট জানে না- কি চুক্তি হবে। যদি কোনো চুক্তি হতে হয় তাহলে বাংলাদেশের মরা-বাঁচার যে সমস্য পানি, সেই পানি হতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার বলছে সমঝোতা স্মারক আর ভারত সরকার বলছে চুক্তি হবে। আমাদের কথা হচ্ছে বাংলাদেশের নিরাপত্তার কোনো বিষয় এতো স্পর্শকাতর হল যে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি? সেটাতো প্রথম জনগণের কাছে এই সরকারকে পরিষ্কার করতে হবে। তারপর পরিষ্কার করতে হবে নিরাপত্তার এই-এই অভাবের কারণে ভারতের সঙ্গে চুক্তি করতে হচ্ছে।

জনগণকে না জানিয়ে ব্যক্তির সঙ্গে ব্যক্তির চুক্তি হতে পারে কিন্তু দেশের সঙ্গে দেশের কোনো চুক্তি হতে পারে না বলেও মন্তব্য করেছেন বিএনপির এই নীতি নির্ধারক।

আজকে দেশের স্বাধীনতা-সর্বভৌমত্ব নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে দাবি করে বিএনপির এই সিনিয়র নেতা বলেন, এই নিরাপত্তা চুক্তি আমাদের স্বাধীনতা-সর্বভৌমত্বের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও স্পর্শকাতর বিষয়। লাখ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে যে স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে সেই স্বাধীনতা-সর্বভৌমত্ব নিয়ে কেউ ছিনিমিনি খেলবে সেটা গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্ব চন্দ্র রায়, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ড. আব্দুল মঈন খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সুকোমল বড়ুয়া, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ।

মন্তব্য

মতামত দিন

রাজনীতি পাতার আরো খবর

সরকারি চিকিৎসায় কেন ভরসা নেই খালেদা জিয়ার

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: খালেদা জিয়ার শরীরের অবস্থা নিয়ে গত বেশ কিছুদিন ধরে গণমাধ্যমে উদ্বেগ প্রকাশ করার পর, বিএনপির কজ . . . বিস্তারিত

হবিগঞ্জে বজ্রপাতে তিনজনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনহবিগঞ্জ: হবিগঞ্জে বজ্রপাতে শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার বেলা তিনটার দিকে বানিয়াচং ও লাখাই . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com